মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০১৯ | | ২১ শাওয়াল ১৪৪০
banner

দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১১ হাজার কোটি টাকা

প্রকাশ : ১১ জুন ২০১৯, ০৮:৪৮ এএম

দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১১ হাজার কোটি টাকা

চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৮৭৩ কোটি ৫৪ লাখ টাকা, যা বিতরণ হওয়া ঋণের ১১ দশমিক ৮৭ শতাংশ। এর আগে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত খেলাপি ঋণ ছিল ৯৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকা।


চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে (জানুয়ারি-মার্চ) দেশে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ১৬ হাজার ৯৬২ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। এছাড়া গত ডিসেম্বর পর্যন্ত অবলোপনের মাধ্যমে ব্যাংকের হিসাবের খাতা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে নীট ৪০ হাজার ১০১ কোটি টাকা। এ ঋণ যোগ করলে দেশে খেলাপি ঋণের প্রকৃত পরিমাণ দাঁড়ায় ১ লাখ ৫০ হাজার ৯৭৪ কোটি টাকা।


বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন পর্যালোচনায় দেখা যায়, আর্থিক অবস্থা ভালো দেখাতে গত বছরের শেষ প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) খেলাপি ঋণ কিছুটা কমিয়ে এনেছিল ব্যাংকগুলো। গত বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ৯৯ হাজার ৩৭০ কোটি টাকা থাকলেও বছরের শেষ তিন মাসে খেলাপি ঋণ ৫ হাজার ৪৫৯ কোটি টাকা কমে ৯৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকায় নেমে আসে।


তবে চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে পুরনো চেহারায় ফিরেছে খেলাপি ঋণ। মার্চে এসে পুনঃতফসিলকৃত ঋণসহ নতুন ঋণও খেলাপি হয়ে পড়েছে। এছাড়া বিশেষ সুবিধায় ২০১৫ সালে পুনর্গঠন করা ঋণের বড় একটি অংশও এখন খেলাপি। সব মিলিয়ে মার্চ প্রান্তিকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ খেলাপি ঋণ বেড়েছে।


প্রতিবেদনে দেখা যায়, চলতি বছরের মার্চ মাস শেষে দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর বিতরণকৃত মোট ঋণের স্থিতি দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৩৩ হাজার ৭২৭ কোটি ১৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে খেলাপি হয়ে পড়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৮৭৩ কোটি টাকা। মোট বিতরণকৃত ঋণের ১১ দশমিক ৮৭ শতাংশ।


প্রতিবেদন অনুযায়ী, মার্চ শেষে রাষ্ট্রায়ত্ব ছয় ব্যাংকের মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৩ হাজার ৮৭৯ কোটি ৪৫ লাখ টাকা, যা বিতরণ করা মোট ঋণের ৩২ দশমিক ২০ শতাংশ।


অন্যদিকে বিশেষায়িত খাতের দুই ব্যাংকের ঋণ খেলাপি হয়েছে ৪ হাজার ৭৮৭ কোটি ৬৪ লাখ টাকা, যা ব্যাংকগুলোর বিতরণ করা ঋণের ১৯ দশমিক ৪৬ শতাংশ। বেসরকারি খাতের ৪২টি ব্যাংকের ঋণ খেলাপি হয়েছে ৪৯ হাজার ৯৫০ কোটি টাকা, যা ব্যাংকগুলোর বিতরণ করা মোট ঋণের ৭ দশমিক ০৮ শতাংশ। এছাড়াও বিদেশি খাতের ৯টি ব্যাংকের ঋণ খেলাপি হয়েছে ২ হাজার ২৫৬ কোটি ৫১ লাখ টাকা, যা ব্যাংকগুলোর বিতরণ করা মোট ঋণের ৬ দশমিক ২০ শতাংশ।

সর্বশেষ সংবাদ