শনিবার, ২৫ মে, ২০১৯ | | ২০ রমজান ১৪৪০
banner

সিরাজদিখানে রাস্তা না থাকায় কয়েক হাজার মানুষের দুর্ভোগ

প্রকাশ : ১০ মার্চ ২০১৯, ১০:৫১ পিএম

সিরাজদিখানে রাস্তা না থাকায় কয়েক হাজার মানুষের দুর্ভোগ

জাহাঙ্গীর আলম চমক, সিরাজদিখান থেকে-

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে একটি রাস্তা না থাকায় গ্রামের কয়েক হাজার মানুষের চলাচলে চরমদুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এতে করে উপজেলার কোলা ইউনিয়নের রক্ষিতপাড়া গ্রামের প্রায় ৩’ শতাধিক পরিবার এদুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। গ্রামটি উত্তর-দক্ষিনভাবে বিভক্ত। স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কোলা ইউনিয়নের রক্ষিতপাড়া গ্রামে উত্তর-দক্ষিনে গ্রামবাসীর যাতায়াতের জন্য ব্রিটিশ আমলের রেকর্ডভুক্ত রাস্তা থাকলেও বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পড়েও রাস্তাটিতে কখনোই মাটি ভরাটের কাজ করা হয়নি। গ্রামটি পার্শ্ববতী উপজেলা শ্রীনগর সিমান্তবর্তী হওয়ায় দুই উপজেলার মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থায়ও দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তাদের দাবি মানুষের চলাচলে রাস্তাটি নির্মাণ করা অতিজরুরী। 

তারা আরো জানান, রাস্তটির দাবিতে পূর্বে একাধিকবার স্থানীয় কাছেও তারা মুখিক আবেদন করেছিলেন। এতে করেও কোন কাজ হয়নি বলে জানান তারা। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গ্রামটির উত্তর-দক্ষিন দিকে জলিল শেখের বাড়ি হতে টুটুল খানের বাড়ি পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার ফুটের দৈর্ঘ একটি রাস্তা রয়েছে। রেকর্ড (রক্ষিতপাড়া মৌজার সিএস দাগ নাং-৩৪৮) অনুযায়ী সর্বোচ্চ ৩০ ও সর্বনি¤œ ১৫ ফুট পস্থ্য রাস্তারটির বর্তমান চিত্র দেখলে মনে হবে এটি কোন জমির বাতর। আশপাশের জমির মালিকরা তাদের ইচ্ছা মতো রাস্তাটি দখল করে রেখেছেন। রক্ষিতপাড়া গ্রামের ওই রাস্তা ধরেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ঈদগাহ, বাজার, কবরস্থানসহ বিভিন্নস্থানে চলাচল করেন বসবাসকারীরা। এসময় স্থানীয় খোরসেদ শেখ , আলমগীর শেখ , টুটুল খানসহ অনেকেই বলেন, বর্ষার পাঁচ মাস পানির নিচে থাকে রাস্তাটি। তখন তাদের যাতায়তে একমাত্র ভরসা হয়ে উঠে নৌকা। এ কারণে লেখাপড়া, দ্রুত চিকিৎসা সেবা ও বিপদ-আপদ মোকাবিলায় রাস্তা না থাকার জন্য তারা বাধাগ্রস্ত হয়ে পরেন। এসময় দুর্ভোগের বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের নজরে নিয়ে এর সমাধানে নতুন রাস্তা নির্মাণের দাবি জানান স্থানীয়রা। 

সর্বশেষ সংবাদ