রোববার, ২৪ মার্চ, ২০১৯ | | ১৭ রজব ১৪৪০
banner

পোলার্ড ঝড়ে ঢাকার সংগ্রহ ১৮৩

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারী ২০১৯, ০৪:৪৩ পিএম

পোলার্ড ঝড়ে ঢাকার সংগ্রহ ১৮৩

শুরুটা নিয়ন্ত্রণেই ছিল টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ে নামা মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার রংপুর রাইডার্সের। কিন্তু তাদের বোকা বানালেন ছয় নম্বরে ব্যাট করতে নামা কিরন পোলার্ড। উইন্ডিজ এই ব্যাটারের দুর্দান্ত নৈপুণ্যে বড় সংগ্রহ পেয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিপিএল টি-টোয়েন্টিতে শুক্রবার প্রথম ম্যাচে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৮৩ রানের সংগ্রহ পায় সাকিব আল হাসানের ঢাকা।

শুরুটা আশাব্যঞ্জক ছিল না ঢাকার। সোহাগ গাজী ও মাশরাফির বোলিংয়ের সামনে দলীয় ৩৩ রানেই টপ-অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ফেলে দলটি। দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছানোর আগেই উইকেট ছাড়া হন ফর্মে থাকা দুই ওপেনার হযরতউল্লাহ জাজাই ও সুনীল নারিন।

ব্যাটে ঝড় তুলতে চাইছিলেন তিন নম্বরে নামা রনি তালুকদার। তা হতে দিলেন সোহাগ। ৮ বলে ১৮ করা এই ব্যাটারকে নিজের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত করেন এই স্পিনার।

রয়েসয়ে ব্যাট চালিয়েছেন অধিনায়ক সাকিব। মিজানুর রহমানের সঙ্গে গড়েন ৩১ রানের জুটি। দলীয় ৬৪ রানে ১৫ করা মিজানুর বেনি হাওয়েলের বলে আউট হলে চতুর্থ উইকেট হারায় ঢাকা।

উইকেটে আসেন পোলার্ড। ছক্কা-চারে মুহূর্তেই পাল্টে দেন দৃশ্যপট। পঞ্চম উইকেটে সাকিবের সঙ্গে গড়েন ৭৮ রানের কার্যকরী এক জুটি। দলীয় ১৪২ রানে হাওয়েলের বলে ডিপ মিডউইকেটে মেহেদি মারুফের হাতে ক্যাচ দেন পোলার্ড। এর আগে ২৬ বলে পাঁচ চার ও চার ছক্কায় ৬২ রান করেন ডানহাতি এই ব্যাটার।

ফরহাদ রেজার বলে কট বিহাইন্ড হন অনেক্ষণ উইকেটের একপ্রান্ত আগলে রাখা সাকিব। এর আগে ৩৭ বলে চার চারে ৩৬ রান করেন এই অলরাউন্ডার। শেষ দিকে ঢাকার রানের গতি টেনে ধরেন রংপুরের পেসার শফিউল ইসলাম।

এর মাঝেও তাণ্ডব চালাতে চেষ্টা করেছেন ঢাকার আরেক ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান আন্ড্রে রাসেল। শফিউলে বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১৩ বলে তিন ছক্কায় করেন ২৩ রান।

রংপুরের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল শফিউল। চার ওভারে ৩৫ রানে তিনটি উইকেট নেন ডানহাতি এই পেসার। দুটি করে উইকেট নেন সোহাগ গাজী ও হাওয়েল। একটি করে উইকেট মাশরাফি ও ফরহাদের।

সর্বশেষ সংবাদ