১৫, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, রোববার

গভীর রাতে জামালপুর ছাড়লেন ডিসি, সেই নারী লাপাত্তা

নারীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ ভিডিও প্রকাশের ঘটনায় জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। রোববার এই আদেশ পাওয়ার আগেই গভীর রাতে তিনি জামালপুর ত্যাগ করেন।

শনিবার রাত ৩টায় বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় তিনি জামালপুর ত্যাগ করে ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে যান।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব এবিএম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার সাক্ষরিত আদেশপত্র জামালপুরে পৌঁছে রোববার দুপুর দেড়টায়। সেই আদেশে আহমেদ কবীরকে প্রত্যাহার করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা করা হয়েছে। তার স্থলে নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করছেন পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহাম্মদ এনামুল হক।

এদিকে ঘটনা প্রকাশের পর থেকে ওই নারী অফিস সহকারী সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা লাপাত্তা। রোববার সাধনার কর্মক্ষেত্রে যোগদানের কথা থাকলেও তিনি অনুপস্থিত রয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন রোববার জানিয়েছেন আহমেদ কবীরের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে। তার শুদ্ধাচার সনদ কেড়ে নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতি জামালপুরের ডিসির একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে তার অফিসের এক নারীকর্মীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে খন্দকার সোহেল আহমেদ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে জেলা প্রশাসকের আপত্তিকর ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। যদিও বিষয়টি অস্বীকার করে ঘটনাটি সাজানো বলে দাবি করেন ডিসি আহমেদ কবীর।

মতামত