১৬, অক্টোবর, ২০১৯, বুধবার

গৌরনদীতে র‌্যাবের তাড়া খেয়ে পুকুরে ঝাপ দিয়ে মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

গৌরনদী (বরিশাল) সংবাদদাতা: বরিশালের গৌরনদীতে র‌্যাব সদস্যদের তাড়া খেয়ে পালাতে গিয়ে পুকুরে ঝাপ দিয়ে মোঃ শামীম হাওলাদার (২৮) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার ২দিন পর গতকাল মঙ্গলবার সকালে পানিতে ভাসতে দেখে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করেছে।

গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের একটি সূত্র থেকে জানাগেছে, উপজেলার বেজগাতি গ্রামের মোঃ মোকলেছ হাওলাদারের ছেলে মোঃ ইয়াবা ব্যবসায়ী শামীম হাওলাদার (২৮) তার অজ্ঞাতনামা অপর দুই সহযোগীকে নিয়ে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার নন্দন পট্রি এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিল। এ সময় বরিশাল র‌্যাব-০৮এর একটি টীম সেখানে পৌছে তাদেরকে ধাওয়া করলে মাদক ব্যবসায়ী শামীম হাওলাদার দৌড়ে পালাতে গিয়ে পার্শ্ববর্তি বাদশা মুন্সী’র পুকুরে ঝাপ দেয়, আর তার অজ্ঞাতনামা অপর ২সহযোগী দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে র‌্যাব সদস্যরা পুকুরের পানিতে নেমে খোজাখুজি করে তাকে না পেয়ে চলে যায়। ঘটনার পর গত ২দিন ধরে মাদক ব্যবসায়ী শামীম হাওলাদার নিখোজ থাকলেও তার পরিবারের পক্ষ থেকে বা র‌্যাব-০৮ এর পক্ষ থেকে এ ঘটনা কেউ গৌরনদী মডেল থানাকে অবহিত করেনি।

গতকাল মঙ্গলবার ভোরে ওই পুকুরের পানিতে নিহত মাদক ব্যবসায়ী শামীম হাওলাদারের লাশ ভাসতে দেখে এলাকাবাসী গৌরনদী মডেল থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে থানা পুলিশ সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে সেখান থেকে নিহত মাদক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

পুকুরের পানিতে ভাসমান অবস্থায় মাদক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ গোলাম সরোয়ার বলেন, নিহত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ শামীম হাওলাদারের বিরুদ্ধে থানায় একটি মাদক মামলা ও একটি মারামারির মামলা রয়েছে। আমরা ভাসমান অবস্থায় তার লাশ পেয়ে উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছি। সে র‌্যাবের তাড়া খেয়ে পুকুরে ঝাপ দিয়ে মারা গেছে, না অন্যকোন ভাবে মারা গেছে এ মুহুর্তে আমি সেটি বলতে পারছি না। এ বিয়য়টি আমার জানা নেই। এ ব্যাপারে চেষ্টা করেও বরিশাল র‌্যাব-০৮ এর কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মতামত