১৬, অক্টোবর, ২০১৯, বুধবার

আবরার হত্যা: বুয়েট ছাত্রলীগ সম্পাদকসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে এ প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়।

এদিকে সোমবার রাতে বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ আবরার হত্যায় জড়িত ১৯ জনকে আসামি করে রাজধানীর চকবাজার থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।মামলাটি করেছেন আবরারের বাবা বরকতুল্লাহ।

সোমবার সন্তানের মৃত্যুর খবর শুনে কুষ্টিয়ার নিজ বাড়ি থেকে ঢাকায় বুয়েট ক্যাম্পাসে আসেন আবরারের বাবা ও চাচা।সন্তানের ক্যাম্পাসে এসেছেন কিন্তু সেই সন্তান না ফেরার দেশে চলে গেছে। সন্ত্রাসীরা দ্বারা নির্মমভাবে হত্যা করছে। আবরারের বাবা বরকতুল্লাহ ও চাচা জহুরুল ইসলাম তার কথা বলে শুধুই কাঁদছেন।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান কৃষ্ণপদ রায়। সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ১৯ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। আটকদের মধ্যে বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকও রয়েছেন।

এদিকে আবরারকে হত্যার সিসিটিভি ফুটেজের কিছু অংশ প্রকাশ্যে এসেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে তাকে পিটিয়ে হত্যার পর নিয়ে যাচ্ছে কয়েকজন।

এদিকে সিসিটিভির পুরো ফুটেজ প্রকাশের দাবিতে পুলিশ কর্মকর্তাদের বুয়েট ক্যাম্পাসে আটকে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা। পুলিশ বলছে, পুরো ফুটেজ তাদের হাতে এসেছে। কিন্তু সেটি আইনী বাধ্যবাধকতার কারণে প্রকাশ করা যাবে না। তবে শিক্ষার্থীদের দাবি ফুটেজ প্রকাশ না করা হলে পুলিশ কর্মকর্তাদের বের হতে দেবেন না।

মতামত